আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নিরাপদ রাখুন

Facebook id hack কথাটা এখন প্রায়'ই শুনা যায়।

আমরা সাধারন কিছু বিষয় ফলো করলেই এই সমস্যা থেকে মুক্ত থাকতে পারবো।

Facebook-আইডি যেভাবে নিরাপদ রাখা যায়।


জন্মতারিখ:

আইডির date of birth-আপনার id হ্যাক হওয়ার জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে।অনেকেই date of birth ছাড়া id hack করতে পারে না।সুতরাং id তে দেওয়া date of birth hide রাখুন।

Two factor বা login approval on.

Two factor authentication আইডি hack হওয়ার কবল থেকে রক্ষা করতে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।আপনার আইডি নিরাপদ রাখতে two factor কিংবা login approval চালু রাখুন।

যেভাবে চালু করবেন:

প্রথমে ফেসবুকে ঢুকে Settings & Privacy তে যান,তারপর Security and Login এ ক্লিক করুন।অতঃপর দেখুন Use two-factor authentication নামে একটা অপশন আছে ঐখানে ক্লিক করুন।এরপর Set Up এ ক্লিক করুন।এবার দেখুন একটি ঘরে আপনার কাছে ফোন নাম্বার চাচ্ছে,ঐ ঘরে আপনার ফোন নাম্বার দিন।নাম্বার দেওয়ার পর আপনার ফোনে 6 সংখ্যার একটি কনফার্মেশন কোড যাবে।এবার কোড দিয়ে কনর্ফাম করুন two factor authentication চালু হয়ে যাবে।

Two factor-এর উপকারিতা।

যদি আপনি two factor on রাখেন,তাহলে id hack হলেও আপনার ফোনে code আসবে। তখন আপনি বুঝতে পারবেন যে, কেহ id তে ডুকতে চাচ্ছে।

two factor-এর সুবিধা এটাই।যখন আপনি বুঝতে পারবেন আপনার আইডিতে কেহ এক্সেস নিতে চাচ্ছে, তৎক্ষণাৎ settins থেকে personal information-এ যাবেন,নতুন email বা number থাকলে সাথে সাথে remove করে দিবেন। অথবা আপনার অ্যাকাউন্টে থাকা জিমেইলে মেসেজ যাবে সেখান থেকে আইডি নিরাপদ করবেন।

Trusted contacts on রাখা।

id তে সবসময় trusted contacts on রাখবেন।৩-৫ জন বন্ধুকে add রাখা যায়।

যেভাবে add করবেন!Settings-security and login→Choose 3 to 5 contacts লেখা দেখবেন,সেখান থেকে ৩-৫ জন close friend অথবা আপনার নিজের id add রাখবেন!


Login alerts on রাখবেন!

Settings→security and login option থেকে login alerts on করে দিবেন।এতে করে আপনার id তে কেহ ডুকতে চাইলে আপনার আইডিতে notification আসবে, মেসেঞ্জারে Message আসবে,email-এ জানিয়ে দেওয়া হবে যে কেহ আপনার আইডিতে ডুকছে। অর্থাৎ unknown device থেকে কেহ login করলে এমনটা হবে।


App passwords.

App password সব সময় দিয়ে রাখবেন! এটা সেট করে রাখলে আপনার আইডির মেইন password ভুলে গেলেও app password এর মাধম্যে আইডিতে আবার ডুকতে পারবেন।


আইডিতে নাম‌ ও জন্মতারিখ:

আইডিতে name আপনার কোন ডকুমেন্ট এর সাথে মিলিয়ে রাখবেন।নাম ও জন্মতারিখ পারলে রিয়েল কোনো passport, nid, driving­ etc ডকুমেন্টসের সাথে মিলিয়ে রাখবেন!id তে দেওয়া email ও number hide রাখবেন!otp bypass করেও id hack করা যায়, তাই Number hide রাখবেন।


3rd party apps বা link

third party কোন app install করবেন না।এইসব apps আপনার ফোনের জন্য ক্ষতিকর।

phishing link এর মাধ্যমে আপনাকে খুব সহজেই বিপদে ফেলতে পারবে।facebook ছাড়া অন্য কোথাও login করবেন না।


সর্বশেষ কথা:

আপনার পার্সোনাল ইনফরমেশন আপনার সর্তকতা অবলম্বন করা ব্যতীত কোনভাবেই নিরাপদ নয়। সুতরাং সর্বোচ্চ সর্তকতা অবলম্বন করুন।

সতর্কীকরণ:

সোর্স উল্লেখ করা ব্যতীত কপি করা নিষেধ।

সোর্স: মুসলিম টেকনিশিয়ান গ্রুপ