আযানের জবাব দিলে কি প্রতিদান পাওয়া যাবে???


রাসূল ﷺ বলেছেন, 

যে ব্যক্তি আন্তরিক বিশ্বাসের সাথে আযানের উত্তর দেয়, তার জন্য জান্নাত ওয়াজিব হয়ে যায়।

[সহীহ মুসলিম- ৩৮৫]


সুবহা’নাল্লাহ! 

জান্নাত ওয়াজিব হয়ে যায়!

৩-৪ মিনিটে কত সহজ আমল।


যেভাবে আজানের জবাব দিব ....


মুয়াজযিন যখন

ﺍﻟﻠَّﻪُ ﺃَﻛْﺒَﺮُ ﺍﻟﻠَّﻪُ ﺃَﻛْﺒَﺮُ

“আল্লাহু আকবার, আল্লা-হু আকবার"


বলে তখন আপনি ও আন্তরিকতার সাথে তার জবাবে বলবেনঃ

ﺍﻟﻠَّﻪُ ﺃَﻛْﺒَﺮُ ﺍﻟﻠَّﻪُ ﺃَﻛْﺒَﺮُ

"আল্লাহু আকবার, আল্লাহু আকবার"।

যখন মুওয়াযযিন বলে

ﺃَﺷْﻬَﺪُ ﺃَﻥْ ﻻَ ﺇِﻟَﻪَ ﺇِﻻَّ ﺍﻟﻠَّﻪُ

"আশহাদু আল লা- ইলা-হা ইল্লাল্ল-হ"


এর জবাবে আপনিও বলবেনঃ

ﺃَﺷْﻬَﺪُ ﺃَﻥْ ﻻَ ﺇِﻟَﻪَ ﺇِﻻَّ ﺍﻟﻠَّﻪُ

"আশহাদু আল লা- ইলা-হা ইল্লাল্ল-হ"।


অতঃপর মুওয়াযযিন বলেঃ

ﺃَﺷْﻬَﺪُ ﺃَﻥَّ ﻣُﺤَﻤَّﺪًﺍ ﺭَﺳُﻮﻝُ ﺍﻟﻠَّﻪِ

"আশহাদু আন্না মুহাম্মাদান রসূলুল্ল-হ"


এর জবাবে বলবেনঃ

ﺃَﺷْﻬَﺪُ ﺃَﻥَّ ﻣُﺤَﻤَّﺪًﺍ ﺭَﺳُﻮﻝُ ﺍﻟﻠَّﻪِ

"আশহাদু আন্না মুহাম্মাদান রসূলুল্ল-হ”।


অতঃপর মুওয়াযযিন বলেঃ

ﺣَﻰَّ ﻋَﻠَﻰ ﺍﻟﺼَّﻼَﺓِ

"হাইয়্যা আলাস সলা-হ"

এর জবাবে বলবেনঃ

ﻻَ ﺣَﻮْﻝَ ﻭَﻻَ ﻗُﻮَّﺓَ ﺇِﻻَّ ﺑِﺎﻟﻠَّﻪِ

“লা-হাওলা ওয়ালা- কুওওয়াতা ইল্লা বিল্লা-হ"।


অতঃপর মুওয়াযযিন বলেঃ

ﺣَﻰَّ ﻋَﻠَﻰ ﺍﻟْﻔَﻼَﺡِ

"হাইয়্যা 'আলাল ফালা-হ"


এর জবাবে আপনি বলবেনঃ

ﻻَ ﺣَﻮْﻝَ ﻭَﻻَ ﻗُﻮَّﺓَ ﺇِﻻَّ ﺑِﺎﻟﻠَّﻪِ

“লা- হাওলা ওয়ালা কুওওয়াতা ইল্লা- বিল্লা-হ”।

অতঃপর মুওয়াৰ্যযিন বলেঃ

ﺍﻟﻠَّﻪُ ﺃَﻛْﺒَﺮُ ﺍﻟﻠَّﻪُ ﺃَﻛْﺒَﺮُ

"আল্লা-হু আকবার, আল্লাহু আকবার"

এর জবাবে আপনি বলবেনঃ

ﺍﻟﻠَّﻪُ ﺃَﻛْﺒَﺮُ ﺍﻟﻠَّﻪُ ﺃَﻛْﺒَﺮُ

"আল্লাহু আকবার, আল্লাহু আকবার"।

অতঃপর মুওয়াযযিন বলেঃ

ﻻَ ﺇِﻟَﻪَ ﺇِﻻَّ ﺍﻟﻠَّﻪُ

“লা-ইলা-হা ইল্লাল্ল-হ"

এর জবাবে আপনি বলবেনঃ

ﻻَ ﺇِﻟَﻪَ ﺇِﻻَّ ﺍﻟﻠَّﻪُ

“লা- ইলা-হা ইল্লাল্ল-হ"


আসসালাতু খাইরুম মিনান নাউমের জবাবে ফজরের আজানে ‘আসসালাতু খাইরুম মিনান নাউম’

-এর জবাবে ‘সাদাকতা ও বারারতা’ পড়বেন।


অতঃপর দুরুদ শরীফ (দরুদে ইব্রাহীম) পড়বেন ও আযানের দোয়া পড়বেন। 


এটাও পড়তে পাড়েন-

দরুদ শরীফ-

صلى الله عليه وسلم.


সল্লাল্লাহু আ’লাইহি ওয়া সাল্লাম। 


আর্থঃ আল্লাহ তাঁর (মুহা’ম্মদের)প্রতি 

সালাত (দয়া) ও সালাম (শান্তি) বর্ষণ করুন।


আজানের দোয়া-


আরবিঃ


‎اللَّهُمَّ رَبَّ هَذِهِ الدَّعْوَةِ التَّامَّةِ وَالصَّلَاةِ الْقَائِمَةِ آتِ مُحَمَّدَاً الْوَسِيلَةَ وَالْفَضِيلَةَ وَابْعَثْهُ مَقَامَاً مَحْمُودَاً الَّذِي وَعَدْتَهُ إِنَّكَ لَا تُخْلِفُ الْمِيعَادَ


বাংলা উচ্চারণ :


আল্লা-হুম্মা রববা হা-যিহিদ্ দা‘ওয়াতিত্ তা-ম্মাতি ওয়াস সালা-তিল ক্বা-’ইমাতি আ-তি মুহাম্মাদানিল ওয়াসীলাতা ওয়াল ফাদীলাতা ওয়াব্‘আছহু মাক্বা-মাম মাহমূদানিল্লাযী ওয়া‘আদতাহ, ইন্নাকা লা তুখলিফুল মী‘আদ।


বাংলা অর্থ :


“হে আল্লাহ! এই পরিপূর্ণ আহ্বান এবং প্রতিষ্ঠিত সালাতের রব্ব! মুহাম্মাদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) কে ওসীলা তথা জান্নাতের একটি স্তর এবং ফযীলত তথা সকল সৃষ্টির উপর অতিরিক্ত মর্যাদা দান করুন। আর তাঁকে মাকামে মাহমূদে (প্রশংসিত স্থানে) পৌঁছে দিন, যার প্রতিশ্রুতি আপনি তাঁকে দিয়েছেন। নিশ্চয় আপনি প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করেন না।


©