#বুক_রিভিউ

সীরাত নিয়ে অনেকেই অনেক বই পড়ে থাকেন।কিন্তু "মুহাম্মাদ হৃদয়ের বাদশাহ" বই সত্যিই অন্যরকম লেগেছে। চমৎকার ভাষাশৈলী ও প্রত্যকটি বিষয় কে এতো সুন্দর ভাবে বিশ্লেষণ করেছেন যে এই বইটি যেকোন পাঠকের হৃদয় ছুয়ে যাবে।

🎋লেখক পরিচিতঃএই কিতাবটি মূলত তার্কিস ভাষায় লিখা যার মূল লেখক ড. রাশীদ হাইলামায যার লিখিত আরো দুইটি গ্রন্থ মাকতাবাতুল ফুরকান থেকে প্রকাশিত হয় এবং পাঠক সমাদ্রীত হয়। ড. রাশীদ হাইলামায- যিনি একজন ইসলামী গবেষক ও সীরাত লেখক, তাঁর সাথে কিতাবটিতে রচনায় কাজ করেন ফাতিহ হারপসি যিনি তুরস্কের মারমারা বিশ্ববিদ্যালয়,ইস্তাম্বুল থেকে গ্রাজুয়েশন করেন এবং ফিলাডেলফিয়ারের টেম্পল বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিপার্টমেন্ট অব রিলিজিয়ন থেকে পিএইচডি অর্জন করেন। ২০০৬ সালে কিতাবটি তার্কিস ভাষায় প্রকাশ হওয়ার পর গ্রন্থটি পাঠক মহলে ব্যাপক গ্রহণযোগ্যতা লাভ করে এমনকি তুরস্কের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি বিক্রিত বইয়ের তালিকায় গ্রন্থটি স্থান লাভ করে। পরবর্তীতে ২০১৪ সালে আমেরিকার নিউজার্সির ‘তুগরা বুকস পাবলিকেশন’ থেকে উক্ত গ্রন্থটি অনূবাদিত হয়ে ”Sultan of Hearts: Prophet Muhammad” নামে ২ খন্ডে প্রকাশিত হয় যা এখনো এমাজন বুক স্টোরে রয়েছে। অনূদিত ইংরেজি সংস্করণ থেকেই বাংলা অনূবাদ করা হয়ঃ সর্বশেষ নবী মুহাম্মদ (সাঃ) হৃদয়ের বাদশাহ। বাংলা অনূবাদ করেন মুহাম্মদ আদম আলী যিনি মাকতাবাতুল ফুরকানের প্রকাশক এবং এর আগেও ড. রাশীদ হাইলামায এর দুটি বই তিনিই অনুবাদ করেন যা উলামায়ে কেরামসহ সকল শ্রেণির পাঠকের কাছে ব্যাপকভাবে গ্রহণযোগ্যতা পায়।


🎋অনুপম লেখনীর বইটি সীরাত জগতে এক নতুন ধারা উন্মোচন করেছে।সীরাত গ্রন্থটি প্রারম্ভিকেই বইটি সম্পর্কে পাঠককে এমন একটা ধারনা দিয়েছে, যা গ্রন্থ অন্তর্নিহিত আলোচনার সারসংক্ষেপ। এবং পরবর্তীতে সূচী পত্র। গ্রন্থটি মূলত তিঁতত্রিশ টি পরিচ্ছেদ নিয়ে ঘটনা গুলো আলোকপাত করা হয়েছে। প্রতিটি বিষয় পয়েন্ট আকারে আলোচনা করায় বিষয় গুলো পাঠকের নিকট আলাদা আলাদা ভাবে উপস্থাপিত হয়।এতে পঠন সহজবোধ্য।
গ্রন্থটিতে সর্বশ্রেষ্ঠ নবী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামে "বাক্কা উপত্যকার প্রতিধ্বনি” আর ”ইব্রাহিম আঃ-এর দুআ” দিয়ে এক আখেরী নবী এ আগমনের সংবাদ দিয়ে শুরু করা হয়েছে।সংক্ষিপ্ত ভাবে আদম আঃ থেকে শুরু করে মূসা (আ:) এর তূর পাহাড়ের ঘটনা এবং রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আর্বিভাবের আগে সেসময়ের ধর্মযাজক বা পন্ডিতদের ভবিষ্যতবানী নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। এরপর আরিয়ান ও আবরাহা এর শাসন আমল হস্তিবাহিনীর ঘটনা ইত্যাদী সহজ সাবলীল ভাষায় আলোকপাত করা হয়েছে।
রাসূল সাঃ এর শৈশব হতে কৈশর কিকরে কাটলো।দুধমাতা হলিমা হতে আবু তালিবের সহোদরে এবং খাদিজা রাঃ পর্যন্ত বিষয় গুলো সুক্ষ্ম ভালো তুলে ধরা হয়েছে।রাসূল সাঃএর মক্কায় ব্যবসায়, বিবাহ, জাহেলী যুগের ঘটনা ও রাসূল সাঃ এর মক্কা জীবন সমূহ আলোচনা করা হয়েছে। নবুওয়াতের পূর্বে এবং পরে মক্কার পরিবেশ,মক্কাবাসীদের নিকট কালেমার দাওয়াত,অবিশ্বাসীদের অমানবিক নির্যাতন, অনাহারে জীবন-যাপন।এরপর আল্লাহর নির্দেশে দারুল আরকাম,আবিসিনিয়া,মদীনায় হিজরত ও হিজরতকালীন নানা বিপদ মুসিবত গুলো এমন ভাবে আলোকপাত করা হয়েছে যে,কল্পনায় সেই সময় গুলো চক্ষুদয়ে ভেসে বেড়াবে। এর পরবর্তীতে ইরসা ও মিরাজের ঘটনাবলী।এভাবেই এক হৃদয়বিদারক ঘটনার রচনা হল।প্রতিটি ঘটনা এমন ভাবে আলোচনা করা হয়েছে যে,পাঠকের নিকট সবচেয়ে সহজবোধ্য।
 

🎋বইটির প্রচ্ছদ উন্নতমানের প্রিন্টিং,হার্ডকভারের বাইন্ডিং এবং পাতা গুলো সুন্দর ভাবে সাজানো।পাঠকের অধ্যয়ের সুবিধার্থে লেখক প্রতিটি ঘটনা সুস্পষ্ট ও সহজ সাবলীল করে সাজিয়েছেন। এখানে ঘটনা বর্ণনায় এমন এক অভিব্যক্তি ব্যবহার করা হয়েছে—যা পাঠককে আলোড়িত করে, চিন্তায় নিমগ্ন করে এবং সামনে অগ্রসর হতে উৎসাহিত করে। এজন্য গতিশীল পাঠের নিমিত্তে প্রতিটি ঘটনায়-ই সূত্র উল্লেখ করা হয়নি। কেবল সেইসব ঘটনার ক্ষেত্রে ফুটনোট ব্যবহার করা হয়েছে—যা প্রসিদ্ধ সিরাতগ্রন্থে বিস্তারিতভাবে উল্লেখিত হয়নি। প্রথম খণ্ডে নবিজি ﷺ-র জন্ম থেকে নিয়ে ইসরা-মেরাজ পর্যন্ত আলোচিত হয়েছে। আশা করি, পাঠকগণ এ গ্রন্থে রাসূল ﷺ-এর জীবনী সম্পর্কে ভিন্ন এক অভিজ্ঞতা লাভ করবে।

বই:সর্বশেষ নবী মুহাম্মাদ ﷺ হৃদয়ের বাদশাহ ১ম খন্ড
লেখক : ড. রাশীদ হাইলামায, ফাতিহ হারপসি
প্রকাশনী : মাকতাবাতুল ফুরকান
ইংরেজি অনুবাদঃ নাযিহান হালিলৌলু
বিষয় : সীরাতে রাসূল | সা. |
অনুবাদ: মুহাম্মাদ আদম আলী
প্রথম প্রকাশঃ জুলাই ২০১৯ ইং
পৃষ্ঠা: ৪৯৬
মুদ্রিত মূল্য : ৮০০

#বইকেন্দ্র_ফুরকান_রিভিউ_প্রতিযোগিতা_অক্টোবর_২০১৯
.